বিশ্বসেরা সংবাদ চ্যানেল আল জাজিরা ! পেয়েছিল, ‘রয়েল টেলিভিশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- বিশ্বসেরা সংবাদ টেলিভিশনের মর্যাদা পেলো আল জাজিরা ইংলিশ। কাতারভিত্তিক ২৪ ঘণ্টা সংবাদ পরিবেশনকারী এ টিভি চ্যানেলটি ২০১১ সালের জন্য বিশ্বসেরা নির্বাচন করেছে রয়েল টেলিভিশন সোসাইটি।

সংস্থাটি বস্তুনিষ্ঠ এবং অনুসন্ধানী প্রতিবেদন পরিবেশনের জন্য প্রতিবছর বিশ্বের সেরা চ্যানেলকে মর্যাদাপূর্ণ ‘রয়্যাল টেলিভিশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড’ দিয়ে থাকে। বিখ্যাত আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠিত জুরি বোর্ড এই পুরস্কারের বিজয়ী নির্ধারণ করে।২০১১ সালে এই সম্মাননা ঝুলিতে পুরলো আল জাজিরা ইংলিশ।আর এ অ্যাওয়ার্ড অর্জনের পথে বিবিসি ও স্কাই নিউজের মতো নামকরা আন্তর্জাতিক সংবাদ টেলিভিশন চ্যানেলকে পেছনে ফেলেছে আল জাজিরা।২০১১ সালে ‘আরব-বসন্ত’ নামে আধুনিক বিশ্বের ইতিহাসে যুগান্তকারী বৈপ্লবিক রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের ঘটনাপ্রবাহের অসাধারণ কাভারেজ দেওয়ায় এরই মধ্যে চ্যানেলটি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছে।এছাড়া, কায়রোর তাহরির স্কোয়ারে সংঘটিত আরব বসন্তের সবচেয়ে চিত্তাকর্ষক ঘটনাপ্রবাহের ওপর চ্যানেলটির কাভারেজ বিশ্বের কোটি কোটি উৎসুক সংবাদশ্রোতা এবং দর্শকের মনোযোগ কাড়ে। এর পাশাপাশি চ্যানেলটি লিবিয়ার গৃহযুদ্ধের ওপরও সবার আগে সবচেয়ে বেশি সংবাদ সরবরাহের কৃতিত্ব দেখিয়েছে। লিবিয়ার নেতা কর্নেল মুয়াম্মার গাদ্দাফি ধরা পড়া ও নিহত হওয়ার খবর ও ছবি সবার আগে বিশ্ববাসীকে আল জাজিরাই দিয়েছিলো।সেরা চ্যানেলের স্বীকৃতি পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে চ্যানেলটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আল আনসতি বলেন, ‘২০১১ সাল ছিলো আল জাজিরার ইতিহাসের সবচেয়ে অভাবনীয় বছর। ওই বছরই পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে মানুষ রাজপথে নেমে বিক্ষোভে অংশ নেয়। অর্থনৈতিক সঙ্কটে নিপতিত ইউরোপের রাজপথে জনতার বিক্ষোভের পাশাপাশি জাপানের সুনামির বিপর্যয়কর ঘটনাবলীও বিশ্ববাসী প্রত্যক্ষ করেছে। এসব ঘটনার প্রতি মুহূর্তের খবর পরিবেশন করার জন্য ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলো আল জাজিরা। ’

তিনি বলেন, ‘পৃথিবীজুড়ে ছড়িয়ে থাকা আল জাজিরার সাংবাদিক ও ব্যুরোগুলোর জন্য এই স্বীকৃতি বিশেষ সম্মানের। ’

এ সম্মাননাকে চ্যানেলটির সাংবাদিকদের কাজের বিশেষ স্বীকৃতি হিসেবেও উল্লেখ করেন তিনি।

সেরা চ্যানেল হওয়ার পাশাপাশি আল জাজিরায় প্রচারিত রাজনৈতিক বিশ্লেষণধর্মী অনুষ্ঠান দ্য স্ট্রিম ‘উদ্ভাবনী সংবাদ’ ক্যাটাগরিতেও সেরা অনুষ্ঠানের  পুরস্কার পেয়েছে। আরব জাগরণের প্রেক্ষিতে উপসাগরীয় রাষ্ট্র বাহরাইনে রাজতন্ত্রপন্থী ও বিরোধীদের অভ্যন্তরীণ বিবাদের একটি গভীর পর্যালোচনা তুলে ধরায় অনুষ্ঠানটিকে এই পুরষ্কারে ভূষিত করা হয়।

ব্রিটেনভিত্তিক রয়্যাল টেলিভিশন সোসাইটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯২৭ সালে। বিশ্বে এ ধরনের প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এটি সর্বপ্রাচীন।

সূত্র : বাংলা নিউজ টুয়েন্টিফোরডটকম, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১২

Be the first to write a comment.

Leave a Reply